‘বাংলাদেশ থেকে আরও কর্মী নেবে কাতার’

কা’তারের শ্রম আ’ইন সং’শোধন হওয়ায় ভবি’ষ্যতে বিদেশি’ কর্মী’রা গৃহক’র্মীদের মতো সব সুবিধা পাওয়ার যোগ্য হবেন বলেও জানান তিনি

 

নার্সিং, হসপি’টালিটি, কনস্ট্রা’কশন, সা”র্ভিস ও আ”ইটি খা’তে বাংলাদেশ থেকে আরও কর্মী নিতে যাচ্ছে কাতার। কাতারের শ্রমমন্ত্রী ডঃ আলী বিন সাঈদ বিন আল

 

সামিক আল মারি রবিবার (২১ আগস্ট) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদের সাথে বৈঠকে এ কথা বলেন।

 

বৈ’ঠকে মারি কাতারে প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকদের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের অর্থনীতির উন্নয়নে তাদের ভূমিকার প্রশং’সা করেন।

 

তিনি বলেন, বাংলাদেশের শ্রমিকরা অত্যন্ত পরিশ্রমী ও দায়িত্বশীল। কাতারের শ্রম আ’ইন সং’শোধন হওয়ায় ভবিষ্যতে বিদেশি কর্মীরা গৃ’হকর্মীদের মতো স’ব সুবিধা পাওয়ার

 

যোগ্য হবেন বলেও জানান তিনি। নিয়ো’গকর্তারা শ্রম’ অধিকার ল”ঙ্ঘ’ন কর’লে কাতার সরকার তাদের বি’রু’দ্ধে ব্যবস্থা নেয়। তিনি কাতারের ক্রম’বর্ধমান শ্রম’বাজারের উপযোগী

 

বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ থেকে দ’ক্ষ কর্মী পাঠানোর ওপর জোর দেন। এ ছাড়া কাতারে কর্মরত শ্রমি’কদের জন্য একটি কল্যাণ তহবিল গঠন করা’ হয়েছে।

 

 

কোনো নিয়োগকর্তা বকেয়া পরিশোধ করতে না পারলে এই তহবিল থেকে অর্থ প্রদান করা হয়, ম্যা’রি বলেন। কাতারে অবস্থা’নরত বাংলাদেশি শ্রমিকরা

 

কাতারের আই’ন মেনে চলার ওপরও জোর দেন তিনি। কাতারের শ্রম মন্ত্রণা’লয়ের সহকারী আন্ডার সেক্রেটারি হাসান আল ওবায়দলী

 

, কাতারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ জসিম উদ্দিন, জন’শক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমই’টি) মহা’পরিচালক শহিদুল আলম এবং মন্ত্রণালয়ের অতি’রিক্ত সচিব ড. মল্লিক আ’নোয়ার হোসেন প্রমুখ। সভায় উ  পস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *